Techzoombd

পিসিতে সেরা ১০টি ওয়েব ব্রাউজার যা আমাদের জানা দরকার

ওয়েব ব্রাউজার

ওয়েব ব্রাউজার সম্পর্কে জানে না বর্তমান সময়ে এমন মানুষের সংখ্যা খুব কম পাওয়া যাবে । সকলের প্রায় দুই চারটা ওয়েব ব্রাউজার সম্পর্কে ধারণ আছ কম বেশি ।

তবে আমদের দেশের বেশির ভাগ মানুষ গুগল ক্রোম ও মজিলা ফায়ার ফক্স সম্পর্কে বেশি জানে ।তবে আজ আমরা এই দুইটা ওয়েব সাইট এছাড়া আরও অনেক ওয়েব সাইট সম্পর্কে জানব ।

ইন্টারনেটে কোনো কিছু খোজাখুজি করতে গেলে যেটা আমাদের যেটা আগে লাগে সেটা হলো ইন্টারনেট কানেকশন । আর ডিভাইসের সাথে ব্রাউজার যেটা ছাড়া ইন্টারনেট ব্রাউজ করা সম্ভব না । তা ব্রাউজারকে ইন্টারনেটের দরজা বলা যেতে পারে ।

সেরা ১০টি ওয়েব ব্রাউজার

১। Google Chrome

লিনাক্স, ম্যাকওএস, উইন্ডোজ, অ্যান্ড্রয়েড ও সকল ধরনের ডিভাইসে সার্পোট করে থাকে Google Chrome . সকল পাওয়ার কারণে মানুষের কাছে খুব সহজে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে ।

বর্তমান সময়ে যতগুলো ওয়েব ব্রাউজার আছে তার মধ্যে Google Chrome বেশি ব্যবহার হয়ে থাকে । ব্রাউজার জগতে তারা সবচেয়ে বেশি অবস্থান ধরে রেখেছে । ২ সেপ্টেম্বর ২০০৮ সালে তারা মার্কেটে আশে ।

ব্রাউজারের কিছু অংশ দেখানো হল

এই অল্প সময়ের মধ্যে তারা ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে ওঠেছে । তারা তাদের থিম এক্সটেনশন ফিচার আরও অন্য সু্যোগ সুবিধা দিয়ে মানুষকে অনেক প্রিয় হয়ে ওঠেছে । ডাউনলোড লিংক

আরও পড়ুনঃ

২। Mozilla Firefox

ওয়েব ব্রাউজার এর দিক থেকে দ্বিতীয় অবস্থানে আছে Mozilla Firefox . এই ওয়েব ব্রাউজারটি সকলের কাছে খুব সুপরিচিত । এই ওয়েব ব্রাউজারটি ফ্রি ও ওপেনসোর্স এটি ডেভেলপ করেছে মজিলা ফাউন্ডেশন ।

ফায়ার ফক্স এর কিছু অংশ দেওয়া হল

এই ব্রাউজার ৯০+ ভাষা সার্পোট করে থাকা । ২৩ সেপ্টেম্বর ২০০২ সালে তারা বাজারে আশে । ব্রাউজারে এক্সটেনশন, থিম, বুকমার্কিং, ও অনেক সুবিধা আছে । ব্রাউজারটি উইন্ডোজ, লিনাক্স, ম্যাকওএস, অ্যান্ড্রয়েড ও বিভিন্ন ধরনের ডিভাইসে সার্পোট করে থাকে ।

৩। Opera

যখন বাজারে নতুন ব্রাউজারের আগমন ঘটে সেই সময় ব্রাউজারটি আসে । আজ থেকে প্রায় ২৫ বছর আগে ১৯৯৫ সালের ১০ এপ্রিল মাসে । গুগল ক্রোম ব্রাউজারের সাফল্যের কারণে তারা একটু পিছিয়ে পড়েছে ।

তবে তারা নতুন নতুন ফিচার এনে তারা মানুষের কাছে আশার চেষ্টা করছে । লিনাক্স, ম্যাকওএস, উইন্ডোজ, অ্যান্ড্রয়েড ও সকল ধরনের ডিভাইসে সার্পোট করে থাকে Opera .  Opera আপনি যদি ব্যবহার করে থাকেন তাহলে আপনাকে এক্সটেনশন নিয়ে কোনো ধরনের টেনশন করতে হবে না ।

কারণ তাদের স্টোরে প্রায় হাজার+ এক্সটেনশন আছে । এছাড়া আপনি ইচ্ছা করলে গুগল ক্রোম এর এক্সটেনশনগুলো ব্যবহার করতে পারবেন ।

৪। UC Browser

যারা অ্যান্ড্রয়েড ফোন ব্যবহার করেছেন তাদের সকলেই বলা যায় UC Browser ব্যবহার করেছেন । কারণ UC Browser সুন্দর সুন্দর ফিচার পাওয়া যায় । তবে এই ব্রাউজার টি পিসিতে অনেক ভালো কাজ করে থাকে ।

এটি অ্যান্ড্রয়েড  উইন্ডোজ আইওএস  প্রায় সকল ডিভাইসে সার্পোট করে থাকে । UC Browser ২০০৪ সালের এপ্রিল মাসে বাজারে আশে । তখন থেকে তারা সেবা দিয়ে যাচ্ছে । আকর্ষনীয় সব ফিচার, থিম , এক্সটেনশন , বুকমার্কিং আরও অনেক সুবিধা রয়েছে  ।

৫। Safari

Safari ব্রাউজারটি গুগল ক্রোম মজিলা ফায়ার ফক্স বা অন্য ব্রাউজারের মত উন্মুক্ত নয় । কারণ এটি শুধু মাত্র অ্যাপল ডিভাইসে ব্যবহার করা যায় । রিলিজ হওয়ার সময় এই ওয়েব ব্রাউজারটি ইউন্ডোজ অপারেটিং ইউজাররা ব্যবহার করতে পারত ।

কিন্তু পরে তারা তাদের কার্যক্রম বন্ধ করে দেয় উইন্ডোজ ব্যবহারকারীদের জন্য । যদি তারা সকল ইউজারদের কাছে উন্মুক্ত থাকত তাহলে ব্রাউজার জগতে তারা অনেক মার্কেট দখল করতে পারত ।

৬। DuckDuckGO

আপনি যদি আপনার প্রাইভেসি নিয়ে কাজ করতে চান তাহলে  ডাকডাকগো ব্রাউজারটি হবে আপনার জন্য উত্তম ব্রাউজার । কারণ এই ব্রাউজারটি গ্রাহকের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দিয়ে থাকে ।

২৫ সেপ্টেম্বর ২০০৮ সালে বাজারে আশে তখন থেকে তারা সার্ভিস দিয়ে যাচ্ছে । তাদের একটি নীতি হচ্ছে সার্চ রেজাল্টে এলোপাতডি কোনো রেজাল্ট না দিয়ে সঠিকটা দেওয়া । এদিক থেকে তাদের একটি আলাদা সুনাম রয়েছে ।

তারা সব সময় তাদের অংশীদারির কোনো তথ্য কোনো ভাবেই শেয়ার করে না । আপনি আত্যাধিক প্রাইভেসি নিয়ে ওয়েব ব্রাউজ করতে চাইলে আপনি এই ওয়েব ব্রাউজারটি ব্যবহার করতে পারেন ।

৭। Microsoft Edge

Microsoft Edge  উইন্ডোজ ১০ আইওএস  অ্যান্ড্রয়েড এই সকল ডিভাইসে সার্পোট করে থাকে । মাইক্রোসফট ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার এর জায়গা ফিতে পেতে মার্কেটে নতুন ভাবে আনে মাইক্রোসফট এজ ।

তবে এটি উইন্ডোজ ১০ এর ডিফল্ট ব্রাউজার হিসেবে ব্যবহার করে থাকে । এটি একটি উইন্ডোজ ১০ এর ডিফল্ট ব্রাউজার হলেও এতে অনেক সুন্দর সুন্দর ফিচার রয়েছে । যা আপনি ব্যবহার করে অনেক উপভোগ করতে পারেন ।

৮। Brave Browser

আপনি যদি ডাকডাকগো ব্রাউজারে প্রাইভেসি নিয়ে সংকোচ করেন । তাহলে আরেক প্রাইভেট ব্রাউজার হলো Brave Browser . এখানে আপনাকে অধিক পরিমানে সিকিউরিটি দিয়ে ব্রাউজ করার সুযোগ দিয়ে থাকে ।

আপনার ডাটাসমুহ লিক হয়ে থার্ড পার্টির কাছে যাওয়ার কোনো সম্ভবনা নেই  । এই ব্রাউজারটি ২০ জানুয়ারি ২০১৬ সালে মার্কেটে এসে মানুষের কাছে অনেক বিশ্বস্ত হয়ে গিয়েছে  সুধু মাত্র তাদের পাইভেসি দেওয়ার কারণে ।

এই ব্রাউজারটি ইউন্ডোজ ম্যাকওস  সার্পোট করে থাকে তাছাড়া ক্রোমের প্রায় সকল ফিচার সার্পোট নিয়ে থাকে ।

৯। Vivaldi

আপনি যদি একটি কাস্টমাইজেবল একটি ব্রাউজার ব্যবহার করতে চান তা হলে আপনার জন্য Vivaldi একটি  আদর্শ ব্রাউজার হতে পারে । এটি ডেভেলপ করেছে অপেরার সাবেক সহ-প্রতিষ্ঠাতা সেই কারণে দেখতে অনেকটা অপেরার মত ।

২৭ জানুয়ারি ২০১৫ সালে বাজারে আশে তাদের কার্যক্রম নিয়ে । এই খানে ক্রোমের সকল ফিচার পাওয়া যায় ।

১০। Maxthon

Maxthon ওয়েব ব্রাউজারের মধ্যে অনেক পুরাতন একটি প্রডাক্ট । প্রাথমিকভাবে তারা বাজারে আশে ২০০২ সালে ।

তাদের প্রাথমিক এই রিলিজে তারা শুধু মাত্র উইন্ডোজে কাজ করে তার পরে অন্য যে সব অপারেটিং সিস্টেম আছে সেখানে কাজ করে ।  এটি অনেক ফাস্ট ক্লাউড ও সিকিউর একটা ব্রাউজার বলা যায় ।

এছাড়া আরও অনেক ব্রাউজার আছে নিচে কয়েকটি নাম দেওয়া    হল ।

Slim Browser, Avant Browser, falkon , Pale moon , Dooble ইত্যাদি ।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
Share on pinterest
Pinterest
Share on telegram
Telegram

আমাদের সাথে সোশ্যাল মিডিয়াতে থাকতে

আমাদের ফেসবুক পেজ এই লিংকে ক্লিক করুন

আমাদের সাথে গুগল নিউজে থাকার জন্য ফলো করুন এই লিংককে ক্লিক করুন

ফেসবুক গ্রুপে আপনার যেকোনো প্রশ্ন/মতামত এই লিংকে ক্লিক করুন

আমাদের সাথে টুইটারে থাকেতে এই লিংকে ক্লিক করুন

আমাদের সাথে পিন্টারেস্টে থাকতে এই লিংকে ক্লিক করুন

সব কিছু একই সাথে পেতে  https://techzoombd.com

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Latest Post

আরও অন্য বিষয়ে পড়ুন